জাতীয় পতাকা বিকৃত: ১৫ দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দেয়ার নির্দেশ

0
76

facebook sharing button
messenger sharing button
twitter sharing button
print sharing button

মহান বিজয় দিবসে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে জাতীয় পতাকা বিকৃত করার ঘটনায় পুলিশকে ১৫ দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদনের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। ওই ঘটনায় তাজহাট থানায় রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা করেন ছাত্রলীগ নেতা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাবেক সহ-সভাপতি আরিফুল ইসলাম।

মামলাটি তালিকাভুক্ত করার জন্য তদন্তকারী পুলিশ কর্মকর্তা এসআই ইজার আলী রংপুর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আবেদন জানালে আদালতের বিচারক শওকত আলী মামলা রেকর্ডভুক্ত করে তদন্তের আদেশ দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তাজহাট থানার ওসি আখতারুজ্জামান।

এদিকে জাতীয় পতাকা বিকৃতভাবে উপস্থাপন করার ঘটনায় রোববারও বিক্ষোভ-মানববন্ধন করেছে একাধিক সংগঠন। ওই ঘটনার সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষক ও কর্মচারী জড়িত বলে থানায় দায়েরকৃত মামলা সূত্রে জানা গেছে। এ নিয়ে গত কয়েক দিন ধরে রংপুরে প্রতিবাদ সমাবেশ অব্যাহত রয়েছে।
 
এক প্রতিবাদলিপিতে ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে ২৪ ঘণ্টার সময়সীমা বেঁধে দিয়েছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ কেন্দ্রীয় কমিটি। রোববার দুপুরে শিক্ষা মন্ত্রণালয় বরাবর লেখা ওই প্রতিবাদলিপিতে এ সময়সীমা বেঁধে দেয়া হয় বলে এ প্রতিবেদককে নিশ্চিত করেন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক আল মামুন।

প্রতিবাদলিপিতে যৌথ স্বাক্ষর করেছেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল ও সাধারণ সম্পাদক আল মামুন।

প্রতিবাদলিপিতে বলা হয়- জাতীয় পতাকা বিকৃতভাবে উপস্থাপন করায় বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা সুস্পষ্টভাবে সংবিধান লঙ্ঘন করে রাষ্ট্রদ্রোহ অপরাধ করেছেন। জাতীয় পতাকা অবমাননা মানে বাংলাদেশকে অবমাননার শামিল।

একই দাবিতে রোববার দুপুরে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা ২৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আয়োজনে বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন পার্কের মোড়ে মানববন্ধন করে প্রতিবাদ জানানো হয়। সমাবেশ থেকে অভিযুক্তদের ওই শাস্তির দাবি জানানো হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা পতাকা বিকৃতি ও অবমাননাকারীদের বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার ও গ্রেফতার করে শাস্তির দাবি জানান। যারা জাতি গড়ার কারিগর, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের কাছ থেকে এমন ন্যক্কারজনক ঘটনা কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না। শুধু জাতীয় পতাকার বিকৃতি নয়, এরা মুজিববর্ষ উপলক্ষে গত ১৭ মার্চ জুতা পায়ে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেছিল, তারাই আবার জাতীয় পতাকা বিকৃতি করেছে। এরা জামায়াত-শিবিরের দোসর। খোলস পাল্টে তারা বারবার মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে অপমান করছে। এদের শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। অন্যথায় কঠোর কর্মসূচির হুশিয়ারি দেন বক্তারা।

২৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি নেছার আহমেদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের জিলানীর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন- মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নওশাদ রশিদ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ওবায়দুর রহমান ময়না, সাংগঠনিক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার শাহাদাৎ হোসেন, সদস্য ও সাবেক কাউন্সিলর ইদ্রিস আলী, মহানগর যুবলীগের সভাপতি সিরাজুম মুনির বাসার, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক রমজান আলী তুহিন, ৩২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি মাহবুবুর রহমান, মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ আসিফ, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক নেতা ফয়সাল আজম ফাইন প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here